দিনে ১৫০০ টাকা আয় করুন । অনলাইন আয়ের সেরা মাধ্যম

0
174
অনলাইন আয়ের
দিনে ১৫০০ টাকা আয় করুন

আপনি কি কাজ বা ব্যবসা করছেন? নাকি গৃহিণী? আপনি যেই হোন না কেন, অনলাইন আয়ের প্রত্যেকেরই অর্থ উপার্জনের অধিকার রয়েছে। আজকে আমি যে বিষয় নিয়ে আলোচনা করব তা হল আপনি যে পেশার সাথে জড়িত থাকুন না কেন, আপনি আপনার বাকি সময় বাঁচাতে পারবেন এবং অনলাইনে আয়ের সেরা মাধ্যম গুলোতে কাজ করে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। যা, অবশ্যই, ভিডিওটি রাতারাতি উত্তেজনা তৈরি করেছে। আরও পড়ুন: সেরা অনলাইন আয়ের সাইট গুলো।

দিনে ১৫০০ টাকা আয় করুন
দিনে ১৫০০ টাকা আয় করুন

আজকাল প্রায় সবাই জানে যে অনলাইনে আয়ের অর্থ উপার্জনের অনেক উপায় রয়েছে এবং অনেক ব্লগার এবং ফ্রিল্যান্সার এই সমস্ত উপায় থেকে প্রতিদিন হাজার হাজার ডলার আয় করছেন।

আজ আমি আপনাদের সাথে অনলাইনে অর্থ উপার্জনের সবচেয়ে সহজ এবং জনপ্রিয় উপায় সম্পর্কে আলোচনা করব যার মাধ্যমে খুব ভাল পরিমাণ আয় করা সম্ভব।সারা বিশ্বে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে অনেক মানুষ যারা অনলাইন থেকে লাখ লাখ আয় করছে। অনেকেই আছেন যারা অনলাইনে থাকার জন্য অতিরিক্ত সময় কাজ করে বাড়তি আয় করছেন। অনেকেই আছেন যারা তাদের বাকী সময় তাদের চাকরি ও ব্যবসায় কাজে লাগিয়ে অনলাইনে ভালো পরিমাণ অর্থ উপার্জন করছেন। যা, অবশ্যই, ভিডিওটি রাতারাতি উত্তেজনা তৈরি করেছে।
আরও পড়ুন: বাংলা লিখে অনলাইন ইনকাম ডেভেলপমেন্ট/এটিএম পেমেন্ট।

বিষয় সূচী :

অনলাইন আয়ের সেরা মাধ্যম হল:
ব্লগিং করে আয় করুন
গুগল অ্যাডসেন্স থেকে আয়
ইউটিউব থেকে আয়
• অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস ডেভেলপমেন্টঃ
• অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং থেকে আয়
• বাণিজ্য ব্যবসা:
• অনলাইন ক্লাসঃ
• ডিজিটাল পণ্য বিক্রয়
• CPA মার্কেটিংঃ

ফ্রিল্যান্সিং:

প্রবন্ধ লিখে আয় আমার শেষ কথা: আরও পড়ুন ২০২২ সালে আয়ের সেরা মাধ্যম গুলি হল: ব্লগিং করে টাকা আয় করুন অনলাইন আয়ের অন্যতম মাধ্যম হল ব্লগিং। আপনি বিভিন্ন মাধ্যমে ব্লগিং করে প্রচুর অর্থ উপার্জন করতে পারেন। উদাহরণ স্বরূপ, অ্যাড সেলস, গুগল অ্যাডসেন্স, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং, আপনার নিজের পণ্য বিক্রি করা, পরিষেবা বিক্রি করা, এমনকি কারও পণ্য অনলাইনে প্রচার করা, আপনার ব্লগের মাধ্যমে কারও ব্যবসার বিপণন করা ইত্যাদি ব্লগিংয়ের অন্যতম প্রধান প্ল্যাটফর্ম হতে পারে। বিশ্বে আজ অনেক বিক্ষিপ্ত ব্যবসায়ী আছেন যারা অনলাইনে তাদের পণ্য বিক্রি করছেন এবং ব্লগের মাধ্যমে তাদের ব্যবসার প্রসার ঘটাচ্ছেন।

বাংলায় সম্পূর্ণ ব্লগিং গাইডগুগল অ্যাডসেন্স থেকে আয়Google AdSense হল Google এর একটি বিজ্ঞাপন নেটওয়ার্ক। এটি ১৮ জুলাই, ২০০৩ এ প্রকাশিত হয়েছিল। বর্তমানে দুই মিলিয়নেরও বেশি Google AdSense প্রকাশক রয়েছে। এবং AdSenseGoogle প্রকাশকদের প্রতি মাসে ১০ বিলিয়নের বেশি অর্থ প্রদান করছে।নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন গুগল অ্যাডসেন্সের পরিধি কতটা বিস্তৃত। আপনি যদি চান, আপনি আপনার অবসর সময়ে, আপনার ব্যবসার অবসর সময়ে, এবং আপনার অবসর সময়ে Google AdSense ব্যবহার করে ঘরে বসে লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করতে পারেন।

বাংলায় সম্পূর্ণ অ্যাডসেন্স গাইড:
আরও পড়ুন: গুগল অ্যাডসেন্স সম্পর্কে ১০টি বিষয় জানা খুবই গুরুত্বপূর্ণগুগল অ্যাডসেন্স কেয়ার – কোনও অ্যাডসেন্স ব্যান/লাইফ সীমা নেইগুগল অ্যাডসেন্স কত টাকা আয় করে? Google থেকে অর্থ উপার্জনের একটি জনপ্রিয় উপায়আপনি যদি গুগল এডসেন্স থেকে ইনকাম করতে চান তাহলে প্রথমে আপনার একটি ওয়েব সাইট থাকতে হবে যে ওয়েব সাইটে আপনি গুগল এডসেন্স এর এড ব্যবহার করে ইনকাম করতে পারবেন। হতে পারে এটি আপনার বিনামূল্যের ব্লগ।

আপনি চাইলে, গুগলের ব্লগস্পট নামে একটি প্ল্যাটফর্ম রয়েছে যেখানে আপনি বিনামূল্যে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন। আপনার ওয়েব সাইটে আপনাকে নিয়মিত সামগ্রী প্রদান করতে হবে, ভালো জিনিস পোস্ট করতে হবে যা দর্শকরা আপনার বিজ্ঞাপনগুলি দেখতে পাবে এবং আপনি সেনাবাহিনী থেকে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন।অথবা আপনার একটি ইউটিউব চ্যানেল দরকার, যদি আপনার একটি ইউটিউব চ্যানেল থাকে সেখানে প্রচুর ভিজিটর থাকে তাহলে আপনি আয় করার জন্য সেই ইউটিউব চ্যানেলে অ্যাডসেন্স বিজ্ঞাপনগুলি মনিটাইজ করতে পারেন। অথবা যদি আপনার একটি প্লে স্টোর অ্যাকাউন্ট থাকে এবং আপনি একজন অ্যাপ ডেভেলপার হন, তাহলে আপনি আপনার অ্যাপে Google AdSense বিজ্ঞাপন ব্যবহার করে অ্যাপ থেকে অর্থ উপার্জন করতে পারেন।ইউটিউব থেকে আয়একটি ইউটিউব চ্যানেল হতে পারে আপনার সারা জীবনের আয়ের মাধ্যম। আপনার যদি একটি ইউটিউব চ্যানেল থাকে, যদি প্রচুর ভিজিটর থাকে, তাহলে আপনি সেই ইউটিউব চ্যানেল থেকে প্রতি মাসে হাজার হাজার টাকা আয় করতে পারবেন। ইউটিউব থেকে আয়ের মাধ্যম হল গুগল অ্যাডসেন্স যা আমরা একটু আগে আলোচনা করেছি। এমনকি আপনার ইউটিউব চ্যানেলে একটি কোম্পানিকে স্পন্সর করেও আপনি তাদের থেকে প্রচুর অর্থ উপার্জন করতে পারেন। এমনকি আপনি ইউটিউবের মাধ্যমে কারো পণ্যের প্রচার করেও আয় করতে পারেন।আপনার চ্যানেল জনপ্রিয় হলে আপনি যেকোনো পণ্য পর্যালোচনা করে আয় করতে পারেন।

আরও পড়ুন:

ইউটিউব থেকে অর্থ উপার্জনের উপায় (সম্পূর্ণ নির্দেশনা)
• ইউটিউব ভিডিও এসইও কি? ১০০% কার্যকর ভিডিও রংকিং কৌশল
ইউটিউব থেকে অর্থ উপার্জন করতে A A থেকে Z  (ইউটিউব টিউটোরিয়াল)
অনলাইনে টাকা আয় করার জন্য যে কাজগুলো করা যায়
অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস ডেভেলপমেন্ট:

আজকের বিশ্বে, মনে হচ্ছে এমন একজনও নেই যে অ্যান্ড্রয়েডের কথা শুনেনি। আজ বিশ্বে অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ব্যবহারকারীর সংখ্যা বুঝুন। আর এটাও জেনে নিন যারা অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহার করেন তারা অ্যান্ড্রয়েড ফোনে বিভিন্ন ধরনের অ্যাপ ইন্সটল করে সেখান থেকে বিভিন্ন ধরনের কাজ করতে পারেন।আপনি যদি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট শিখতে চান, তাহলে আপনি সেই অ্যাপগুলি প্লে স্টোরে আপলোড করে, সেখানে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে এবং বিভিন্ন পণ্যের প্রচারের মাধ্যমে আয় করতে পারেন। এমনকি আপনি অর্থপ্রদত্ত অ্যাপস তৈরি করে এবং পোষা সদস্যদের যোগ করে আয় করতে পারেন। অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যমে আয়বর্তমানে, তরুণরা মূলত অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিংয়ের দিকে ঝুঁকছে। কারণ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং অর্থ উপার্জনের একটি খুব সহজ উপায়।

আপনার মন্তব্য লেখার জন্য..

Please enter your comment!
Please enter your name here