মাইক্রোসফট ওয়ার্ড দ্বারা যে সকল কাজ করা যায় বিস্তারিত টিপস্ সহ…

0
342
মাইক্রোসফট-ওয়ার্ড

মাইক্রোসফট ওয়ার্ডে যাবতীয় Secretarial কাজ সম্পাদনের জন্য Microsoft Word  সর্বাধিক পরিচিত। Window ভিক্তিক এ Word Processor Package Program টি আমেরিকার বিখ্যাত সফটওয়্যার কোম্পানী “মাইক্রোসফট কর্পোরেশন” কর্তৃক তৈরিকৃত  ও বাজারজাতকৃত বলে এর নামকরুণ করা হয়েছে Microsoft Word ।

মাইক্রোসফট ওয়ার্ড দ্বারা যে সকল কাজ যায় তা নিম্ন রুপ:

১. যে কোন চিঠি পত্র তৈরি করা (ব্যক্তিগত, অফিসিয়াল ও বাণিজ্যিক)
২. বিভিন্ন ধরণের প্রজেক্ট প্রোফাইল তৈরি করা যায়।
৩. প্রাথমিক ধাপের গাণিতিক কার্যাবলী সম্পাদন করা যায়। (যোগ, বিয়োগ, ভাগ, গুন, ইত্যাদি)
৪. গাণিতিক সমীকরণ লিপিবন্ধ করা যায়।
৫. বিভিন্ন ধরনের ছবি সংযোজন এবং রংয়ের ব্যবহার করে ডকুমেন্টের সৌন্দর্য বৃন্ধি করা যায়।
৬. ছাপার কাজের জন্যে প্রয়োজনী?য় কম্পোজ করা যায়।

মাইক্রোসফট ওয়ার্ড চালু করার নিয়ম:

প্রিয় শিক্ষার্থীবৃন্দ- যে কোন ইলেকট্রনিক যন্ত্র চালাতেএকটি স্যুইচ এর মাধ্যমে চালু এবং বন্ধ করার নিয়মআপনারা জানেন। যেমন: রেডিও, টিভি, ফ্রিজ ইত্যাদি। কম্পিউটার যেহেতু একটি ইলেকট্রনিক যন্ত্র সেহেতুএই যন্ত্রটিকে চালাতে একটি স্যুইচ ব্যবহার করা হয়।এই স্যুইচকে কম্পিউটারের পাওয়ার স্যুইচ বলা হয়। কম্পিউটার এর পাওয়ার স্যুইচ চালু করার পর পর Window-98/XP/এখন বহু ব্যবহৃত উন্ডোজ ৭/৮/১০ ইত্যাদি ভার্সনের লগো দেখিয়ে ডেস্কটপ পর্দা আসবে।এখন সর্ব প্রথম স্টাট বাটনে ক্লিক করে প্রোগ্রাম লেখার উপর ক্লিক করে মাইক্রোসফট ওয়ার্ড ক্লিক করলেএটি ওপেন হবে।

আপনি যে ভার্সনে ওপেন করেন না কেন আগে মেনু/টুল/অফশন এগুলো জেনে নিন তার পর কাজ করুন দেখুন সহজ হবে এখানে আমি মনে করি হতাস হবার কিছুই নেই একদম সহজ মানে সহজ ।

* File Menu- Ms Word প্যাকেজ প্রোগ্রামে কাজ করার সময় টাইটেল বারের নিচে File, Edit, View, Insert, Format, Tools, Table, Window, Help নামে ৯টি ইরেজী শব্দ লেখা যায় এদেরকে মেনু বলে থাকি। প্রতিটি মেনুতে মাউস পয়েন্টার নিয়ে ক্লিক করলে সাব মেনু দেখা যায় ।
* এখন কাজের কথায় আসি আপনি লক্ষ করেন দীর্ঘ দিন থেকে দেখে আসতেছেন এই মেনু গুলো হঠাৎ করে নেই তাহলে এখন আবার মেনুর পরিবর্ততে কি? আছে দেখুন মেনু আছে থাকবে কিন্তু মেনুগুলোকে আপডেট করা হয়েছে- একটু লক্ষ করুন ফাইল মেনুর কাজ অফিস বাটনে বা সবার উপরে দেখুন পাবেন সবকিছু ওখানে না বাকী মেনু গুলোকে রিবোন হিসাবে বলে থাকি পাশা-পাশি মেনু গুলোর নাম কিছুটা আলাদা- যেমন Home. Insert, Page Layout, References, Mailings, Review, View, Add-Ins এবং প্রত্যেক অপশন গুলো দেখে দেখে কাজ করবেন সব কিছু ভাল ভাবে আছে যদি জানতে বা কাজ করতে অসুবিধা হয় অবশ্যই আমাদের ভিডিও চ্যানেল বা ওয়েব সাইটে পাবেন।

আরো বিশাল তথ্য নিয়ে আমি আসতেছি সবার মঙ্গল কামনা করে আজ শেষ করতেছি। লেখা চলতেই থাকবে…..

আপনার মন্তব্য লেখার জন্য..

Please enter your comment!
Please enter your name here